নামের পাশে জ্বলজ্বলে নানান রেকর্ড। দলীয় ট্রফি আর ব্যক্তিগত স্মারকে ভাস্বর লিভিং রুমের শোকেসটিও। তুবও কোথায় যেন একটু খামতি ছিল। সেটিও পূরণ হয়ে গেল, লিওনেল মেসির নামের পাশে এখন লা লিগায় ৪০০ গোলের মাইলফলক।

এর আগে থেকেই স্পেনের শীয় এই লিগের সর্বোচ্চ গোলের মালিক ছিলেন বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড। এবার সেটিকে আর্জেন্টাইন যাদুকর তুললেন নতুন চূড়ায়। এইবারের বিপক্ষে ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধে জালে বল পাঠিয়ে পেলেন অনির্বচনীয় স্বাদ। ক্যাম্প ন্যু’য়ে গেলপরশু রাতে ৫৩তম মিনিটে ডি-বক্সে লুইস সুয়ারেসের ছোট পাস ধরে কোনাকুনি একটু এগিয়ে গোলটি করেন মেসি। প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে এই মাইলস্টোন স্পর্শ করলেন বার্সা অধিনায়ক।

স্পেনের শীর্ষ লিগে মোট ৪৩৫ ম্যাচ খেলে অসাধারণ এই কীর্তি গড়লেন মেসি। দুর্দান্ত এই পথচলায় ম্যাচ প্রতি গোল করেছেন প্রায় ০.৯২ হারে। এই সময়ে তিনি ৮৩ ম্যাচে গোল করেছেন দুটি করে আর হ্যাটট্রিক করেছেন ৩১ বার। ২০০৪ সালের অক্টোবরে এস্পানিওলের বিপক্ষে লা লিগায় অভিষেক হয় মেসির। পরের বছর ১ মে আলবাসেতের বিপক্ষে লিগে প্রথম গোলের দেখা পান, তখন তার বয়স ১৭। ২০১০ সালের ২০ নভেম্বর আলমেইরার বিপক্ষে করেন শততম গোল। ২০১৩ সালের ২৭ জানুয়ারি ওসাসুনার বিপক্ষে ২০০তম ও ২০১৬ সালের ১৭ ফেরুয়ারি স্পোর্টিং গিজনের বিপক্ষে ৩০০তম গোল করেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

বর্তমানে প্রতিযোগিতাটিতে খেলছে এমন ফুটবলারদের মধ্যে গোলের হিসেবে মেসির ধারে কাছে নেই কেউ। সবচেয়ে কাছে থাকা আথলেতিক বিলবাওয়ের আরিৎস আদুরিসের গোল ১৫৭টি। লা লিগার ৯০ বছরের ইতিহাসে সেরা গোলদাতাদের তালিকাতেও বেশ বড় ব্যবধানে এগিয়ে শীর্ষে আছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

উরোপের শীর্ষ লিগে অবশ্য মেসির চেয়ে বেশি গোল দিয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। তার গোল সংখ্যা ৪০৯টি। তবে এ গোলগুলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, রিয়াল মাদ্রিদ ও জুভেন্টাসের হয়ে দিয়েছেন এ তারকা। এর মধ্যে রিয়ালের হয়ে ৩১১টি গোল দিয়েছিলেন এ পর্তুগিজ। তবে তিনি মেসির চেয়ে মোট ৬৩টি ম্যাচ বেশি খেলেছেন। ৪৩৫ ম্যাচ খেলেই ৪০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করেন মেসি।

চটি ৩-০ গোলে জেতে বার্সেলোনা। বিরতির আগে লুইস সুয়ারেজ দলকে এগিয়ে নেওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের সপ্তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেসি। চলতি লিগে এই নিয়ে টানা পাঁচ ম্যাচে জালের দেখা পান পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার। এই সময়ে মোট আটটি গোল করেন তিনি। আর আসরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলদাতার এটি ১৭তম গোল। এমন দিনে প্রিয় শিষ্যর প্রশংসা করতে ভোলেন নি আরনেস্তে ভালভারদে। সংবাদ সম্মেলনে ৩১ বছর বয়সী মেসির অসাধারণ পারফরম্যান্সের প্রশংসা করার ভাষাই খুঁজে পাননি বার্সা কোচ, ‘মেসির পরিসংখ্যান আকাশ ছোঁয়া; এগুলো অবিশ্বাস্য। শুধু গোলগুলো নয়, যেসব কীর্তি সে গড়েছে, তাতে মনে হয়, সে অন্য গ্যালাক্সি থেকে এসেছে।’

একই রাতে আবারও হোঁচট খেতে বসেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। তবে দানি সেবাইয়োসের শেষ দিকের গোলে রিয়াল বেতিসের মাঠ থেকে ২-১ গোলের জয় নিয়ে ফিরেছে প্রতিযোগিতার সফলতম দলটি। লুকা মদ্রিচের গোলে রিয়াল শুরুতে এগিয়ে যাওয়ার পর সমতা ফিরিয়েছিলেন সের্হিও কানালেস। তবে দানি সেবাইয়োসের শেষ দিকের গোলে লিগে দুই ম্যাচ পর জয়ের দখা পেল সান্তিয়াগো সোলারির দল।

১৯ ম্যাচে ১০ জয় ও তিন ড্রয়ে ৩৩ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে উঠেছে রিয়াল মাদ্রিদ। লুইস সুয়ারেসের জোড়া ও লিওনেল মেসির এক গোলে এইবারকে ৩-০ ব্যবধানে হারানো বার্সেলোনা ১৩ জয় ও চার ড্রয়ে ৪৩ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে। লেভান্তেকে ১-০ গোলে হারানো আতলেতিকো মাদ্রিদ ৫ পয়েন্ট কম নিয়ে আছে দ্বিতীয় স্থানে। আথলেতিক বিলবাওয়ের মাঠে ২-০ গোলে হারা সেভিয়ার পয়েন্টও রিয়ালের সমান ৩৩। তবে মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে সেভিয়া। পাঁচ নম্বরে নেমে যাওয়া আলাভেসের পয়েন্ট ৩২।

সেরা ৫ গোলদাতা

লিওনেল মেসি ৪০০
ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ৩১১
তেলমো জারা ২৫১
হুগো সানচেস ২৩৪
রাউল গঞ্জালেস ২২৮

Leave a Reply

  • (not be published)